Jatiyonews

সব দলের অংশগ্রহণে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন চাই : সালমা ইসলাম

সব দলের অংশগ্রহণে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন চাই : সালমা ইসলাম
February 12
02:16 2018

নিজস্ব প্রতিবেদক, জাতীয় নিউজ.কম ১২ ফেব্রুয়ারি : সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও ঢাকা-১ আসনের জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম বলেছেন, ‘এ বছর জাতীয় নির্বাচনের বছর। সবার মতো আমার দল জাতীয় পার্টি ও আমার প্রত্যাশা একাদশ জাতীয় নির্বাচন যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন হবে অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ। দেশি-বিদেশি পর্যবেক্ষকসহ সবার কাছে যেন এ নির্বাচন একটি মাইলফলক হিসেবে বিবেচিত হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘এক্ষেত্রে নির্বাচন কমিশনের গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রয়েছে। পাশাপাশি নির্বাচনকালীন সরকারের ভুমিকা অনস্বীকার্য। কেননা, সরকারের সহযোগিতা ছাড়া কখনও সুষ্ঠু নির্বাচন করা সম্ভব হবে না। আমরা দেশে কোনো হানাহানি দেখতে চাই না। চাই না হরতাল কিংবা নৈরাজ্যকর কোনো পরিস্থিতি। আমরা চাই, সব দলের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে জনগণের সরকার গঠিত হবে। যে নির্বাচন নিয়ে কোনো প্রশ্ন বা সন্দেহ তৈরি হবে না।’

রোববার জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি এসব কথা বলেন।

তিনি এ সময় চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি, অর্থনৈতিক অবস্থা, ঋণ খেলাপির সংস্কৃতি, মানুষের অধিকার, আগামী নির্বাচনসহ নানা ইস্যুতে কথা বলেন।

সালমা ইসলাম বলেন, ‘দেশের বিদ্যমান অর্থনীতি ও ব্যাংকিং খাত নিয়ে এর আগেও আমি সংসদে তথ্যভিত্তিক অনেক কথা বলেছি। কিন্তু অগ্রগতি বলতে যা হয়েছে তা হল- ভেতরে ভেতরে ব্যাংকগুলো উজাড় হতে বসেছে। বাড়ছে খেলাপি ঋণের পরিমাণ। সঙ্গে আছে ব্যাংক পরিচালকদের ঋণের বোঝা আর অবলোপনের নামে ঋণের টাকা আত্মসাৎ করা। সর্বোপরি, পণ্য আমদানির নামে কোনো পণ্য না এনেই বিশেষ কৌশলে দেশ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ পাচার হয়ে যাচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘কিছুদিন আগে এ নিয়ে পত্রিকায় রিপোর্টও দেখেছি। কিন্তু ওই রিপোর্টের বিষয়ে দায়িত্বশীল কোনো পর্যায় থেকে কোনো ব্যাখ্যা দেয়া হয়েছে বলে আমার জানা নেই। যদি না দেয়া হয়ে থাকে তাহলে ধরে নিতে হবে- অবিশ্বাস্য এ পন্থায় টাকা পাচার সত্যিই হচ্ছে। সেটা হলে অবশ্যই তা উদ্বেগের বড় কারণ।’

অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম বলেন, ‘এসব খবর যদি সত্যি হয়, তাহলে শেষমেষ পরিস্থিতি এই দাঁড়াবে হঠাৎ বেশ কিছু ব্যাংক দেউলিয়া হয়ে যাবে এবং সাধারণ আমানতকারীদের পথে বসতে হবে।’ জাতীয় পার্টির এ সংসদ সদস্য আরও বলেন, ‘এদিকে সম্প্রতি মাননীয় অর্থমন্ত্রীর একটি বক্তব্য আমার দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। তিনি একটি ব্যাংকের বার্ষিক ব্যবসায়িক সম্মেলনে বলেছেন, ‘সরকারি ব্যাংকগুলোর খেলাপি ঋণ বেড়ে যাওয়ার পেছনে সরকারও দায়ী’। হয়ত অর্থমন্ত্রীর এমন বক্তব্য সত্য। কিন্তু প্রশ্ন হল- তিনি কাকে ব্লেম করছেন। তিনিই তো অর্থমন্ত্রী, ব্যাংকের ভালোমন্দ দেখভাল করার দায়িত্ব তার। রুলস অব বিজনেস অনুযায়ী তিনিই মন্ত্রণালয়ের প্রধান নির্বাহী।’

তিনি বলেন, ‘সত্যি কথা বলতে কী এ খবরগুলো আমাদের খুবই ব্যাথিত করে। আমরা ঋণ খেলাপি ও অর্থ লুটপাটকারীদের বিরুদ্ধে কার্যকরভাবে ব্যবস্থা নিতে পারছি না। এ অবস্থা চলতে থাকলে অর্থনৈতিক চালিকা শক্তির বড় মাধ্যম ব্যাংকগুলো একসময় নিঃশ্বেষিত হয়ে যাবে। তখন গানের ভাষায় বলতে হবে- ‘আমার বলার কিছু ছিল না, চেয়ে চেয়ে দেখলাম, তুমি চলে গেলে…।’

সাবেক প্রতিমন্ত্রী সালমা ইসলাম বলেন, ‘আর একটি বিষয়ে কথা না বললেই নয়। তা হলো- প্রশ্নপত্র ফাঁস। এটি রীতিমতো এখন গলার ফাঁস হয়ে দেখা দিয়েছে। কিন্তু কেন? আর কতোদিন এ অবক্ষয় চলবে? কী হবে আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের? সব কিছু কী আমাদের এভাবে ফাঁস দিয়েই চলবে? প্রশ্নফাঁস রোধে গত কয়েক মাস থেকে কতো কথাই না শুনে আসছি। কেবল যুদ্ধ ঘোষণাটাই বাকি।’

তিনি বলেন, ‘বিরোধীদলীয় একজন সংসদ সদস্য হিসেবে আমার ক্ষুদ্র রাজনৈতিক অভিজ্ঞতা থেকে আমি মনে করি, জনপ্রত্যাশা অনুযায়ী আমরা এখনও সেই ধরনের ইতিবাচক রাজনৈতিক সংস্কৃতি ও পরিবেশ গড়ে তুলতে পারিনি। অথচ আইনপ্রণেতা হিসেবে দেশের সাধারণ মানুষ আমাদের কাছে তেমনটিই আশা করে। কিন্তু বাস্তবতা এমন পর্যায় গিয়ে ঠেকেছে যে- আজ আমরা শুধু ক্ষমতার রাজনীতিই করছি।’

সালমা ইসলাম বলেন, ‘সাধারণ নিরীহ মানুষ নানাভাবে হেনস্তার শিকার হচ্ছে। বিনা বিচারে নিরাপরাধ বহু মানুষ জেল খাটছে। হয়রানি ও গ্রেফতার এড়াতে পুলিশের ভয়ে অনেকে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। কিন্তু এগুলো শুভ লক্ষণ নয়। এভাবে চলতে থাকলে প্রত্যাশিত গণতন্ত্র এক সময় জাদুঘরে চলে যাবে। বিপরীতে নানা চক্রান্তে আটকা পড়ে আমরা সবাই ক্ষতিগ্রস্ত হব। দেশে রাজনৈতিক অনিশ্চয়তা আরও প্রকট আকার ধারণ করবে।’ তিনি বলেন, বিরোধী দলের একজন সংসদ সদস্য হিসেবে আমি বলব- আসুন, আর একবার আমরা ভেবে দেখি। নেতিবাচক কোনো পরিস্থিতি তৈরি করে আমরা দীর্ঘমেয়াদের জন্য নিজেদের বড় ক্ষতি করছি কিনা।’

জাতীয় নিউজ.কম/এআর

Share

About Author

admin

admin

Related Articles

Ad Here
Ad Here
Ad Here

Latest Video

Stay Connected With Us:


  • facebook
  • Twitter
  • Google Plus
  • Linkedin
  • Pinterest
  • Pinterest